১৫ হাজার টাকা খরচ করে মাসে আয় করুন ৪০ হাজার টাকা, রমরমিয়ে চলবে ব্যবসা

অনেকেই ছোট আকারে ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন। একটি ছোট আকারের ব্যবসা শুরু করার খরচ কম হওয়ার পাশাপাশি লোকসানের সম্ভাবনাও কম। আজকে আপনাকে এমন একটা…

Published By: Pritam Santra | Published On:
Advertisements

অনেকেই ছোট আকারে ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন। একটি ছোট আকারের ব্যবসা শুরু করার খরচ কম হওয়ার পাশাপাশি লোকসানের সম্ভাবনাও কম। আজকে আপনাকে এমন একটা বিজনেস আইডিয়া আমরা দিতে চলেছি, যেখানে মাত্র ১৫ হাজার টাকা বিনিয়োগ করে নিজের ব্যবসা শুরু করে দিতে পারবেন। এরপর দিনে ১০০০ থেকে ১২০০ টাকা আয় করতে শুরু করবেন। যদিও বড় স্টার্টআপগুলির তুলনায় এই ব্যবসায় খুব বেশি উপার্জন হয় না, তবুও এই ব্যবসায় চাহিদা বেশি। যার ফলে মাসে ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকায় আয় করা সম্ভব।

Advertisements

আমাদের সমাজের বেশিরভাগ মানুষ টি-শার্ট পরেন এবং বৃহত্তর দৃষ্টিকোণ থেকে দেখলে, আমাদের দেশের প্রতিটি বয়সের লোকেরা টি-শার্ট ব্যবহার করেন। সর্বাধিক জনপ্রিয় টি-শার্টগুলি প্রিন্ট করা টি-শার্ট এবং প্লেইন টি-শার্ট। সেই তুলনায় প্রিন্টেড টি-শার্টের দাম বেশি। এমন পরিস্থিতিতে আপনি যদি টি-শার্ট প্রিন্টিংয়ের ব্যবসা শুরু করেন, তাহলে আপনাকে একটি ছোট টি-শার্ট প্রিন্টিং মেশিন কিনতে হবে, তারপর প্লেইন টি-শার্ট প্রিন্ট করে ভারতীয় বাজারে যুক্তি সঙ্গত দামে বিক্রি করে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। এক মাসে ভালো লাভ।

Advertisements

খোলা বাজার থেকে পাইকারি দরে এক সঙ্গে অনেক প্লেইন টি-শার্ট সস্তায় কিনে রাখতে পারেন। বাজার থেকে আনার পর আপনি আপনার প্রিন্টিং মেশিনের মাধ্যমে প্রিন্ট করে যুক্তি সঙ্গত দামে বিক্রি করতে পারবেন। বিভিন্ন ট্রেন্ডিং ডিজাইন প্রিন্ট করলে বাজারে আপনার প্রিন্ট করা টি শার্টের প্রতি মানুষের দৃষ্টি আকর্ষিত হবে বেশি।

সাধারণত প্রিন্টেড টি-শার্টের দাম প্লেইন টি-শার্টের চেয়ে ২-৩ গুণ বেশি, বিভিন্ন ডিজাইনের জন্য আলাদা আলাদা দাম নির্ধারণ করা হয়। আপনি যদি এই ব্যবসা শুরু করেন তবে ভালো অর্থ উপার্জনের সম্ভাবনা থাকছে। কাজ শুরু করার জন্য একটি মেশিন প্রয়োজন। এ ছাড়া জামাকাপড় কেনার জন্য টাকা কিছু টাকার দরকার। যার জন্য প্রাথমিক পর্যায়ে অতিরিক্ত ১০ হাজার টাকার প্রয়োজন হতে পারে। তাহলে আপনি সহজেই আপনার বাড়িতে প্রিন্টিং মেশিন ইনস্টল করে টি-শার্ট প্রিন্টিংয়ের ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

t shirt printing business

কোনও দোকান ছাড়াই এটি শুরু করতে পারেন, এছাড়াও আপনি অনলাইনের মতো প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে সংযোগ করে এটি বিক্রি করতে পারেন। ঠিকঠাক চললে আপনার প্রত্যাশার চেয়ে বেশি অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। এটি ছোট ব্যবসায়ীদের জন্য অন্যতম সেরা এবং সর্বাধিক জনপ্রিয় ব্যবসা।

Advertisements