কর্মীদের বেতন বাড়তে চলেছে চোদ্দ হাজার টাকা, জোড়া সিদ্ধান্ত নেওয়ার পথে কেন্দ্র

কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের বেতন ব্যাপক হারে বাড়তে চলেছে, বিগত কয়েক দিন ধরে এ ব্যাপারে আলোচনা শোনা যাচ্ছে। সরকার শীঘ্রই কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের একটি নয়, দুটি বড় উপহার…

Published By: Pritam Santra | Published On:
Advertisements

কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের বেতন ব্যাপক হারে বাড়তে চলেছে, বিগত কয়েক দিন ধরে এ ব্যাপারে আলোচনা শোনা যাচ্ছে। সরকার শীঘ্রই কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের একটি নয়, দুটি বড় উপহার দিতে চলেছে বলে অনেকের অনুমান। উভয় উপহারই মুদ্রাস্ফীতির বাজারে মধ্যবিত্ত পরিবারের জন্য কাজে লাগবে বলেই ধরে নেওয়া যেতে পারে। সরকার ডিএ বৃদ্ধির পাশাপাশি ফিটমেন্ট ফ্যাক্টরও বাড়াতে চলেছে, যা বড় অঙ্কের চেয়ে কম হবে না।

Advertisements

এতে বিপুল সংখ্যক কর্মী উপকৃত হবেন। সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে এ ধরনের কোনো সিদ্ধান্ত না নিলেও শিগগিরই তা জানানো হবে বলে দাবি করছে গণমাধ্যমের কিছু খবর। যদি সত্যি এটি ঘটে তবে এই মাসটি অনেক কর্মী মনে রেখে দেবেন বহু দিন। ডিএ’র পর মাসে এবং বছরে কত বেতন বাড়বে তা জানতে হলে আমাদের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে।

Advertisements

নরেন্দ্র মোদী সরকার কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের ডিএ ৪ শতাংশ বাড়িয়ে দিতে পারে, যার পরে তা বেড়ে ৪৬ শতাংশ হবে। বর্তমানে কেন্দ্রীয় কর্মচারীরা ৪২ শতাংশ ডিএ-র সুবিধা পাচ্ছেন। আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে কর্মচারীরা কত সহজে বেতন পাবেন।

7th Pay Commission

ধরে নেওয়া যাক প্রকৃতপক্ষে কোনো কর্মচারীর মূল বেতন ৩০,০০০ টাকা। যার মধ্যে যদি ৪ শতাংশ ডিএ যোগ করা হয়, তাহলে মাসিক বৃদ্ধি হবে ১,২০০ টাকা। সেই অনুযায়ী এক বছরের হিসাব করলে প্রায় ১৪,০০০ টাকার পরিমাণ বাড়বে। ১৪ হাজার টাকা বৃদ্ধি পাওয়া মুখের কথা নয়। মুদ্রাস্ফীতির যুগে বর্ধিত এই পরিমাণ বুস্টার ডোজের মতো কাজ করবে।

কেন্দ্রের মোদী সরকার ফিটমেন্ট ফ্যাক্টর নিয়েও বড় কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারে বলে অনেকে মনে করছেন। মনে করা হচ্ছে, কর্মীদের চাহিদা বিবেচনায় ফিটমেন্ট ফ্যাক্টর বাড়ানো যেতে পারে। এটি ২.৬০ গুণ থেকে ৩.০ গুণ পর্যন্ত বাড়ানো যেতে পারে। এতে মূল বেতন বৃদ্ধি পাবে। ফিটমেন্ট ফ্যাক্টরটি 2016 সালে বাড়ানো হয়েছিল।

Advertisements