এই মুহূর্তের বড় খবর, নতুন ভিডিও পাঠালো চন্দ্রযান-৩! দেখে অবাক ইসরোর বিজ্ঞানীরাও

২০১৯ সালে চন্দ্রযান-২ মিশনের ব্যর্থতার পরেই চন্দ্রযান-৩ মিশনের পরিকল্পনা শুরু করেন ভারতের স্পেস গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা। চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে গবেষণা শুরু করার উদ্দেশ্যে বিগত কয়েক…

Published By: Saikat Sarkar | Published On:
Advertisements

২০১৯ সালে চন্দ্রযান-২ মিশনের ব্যর্থতার পরেই চন্দ্রযান-৩ মিশনের পরিকল্পনা শুরু করেন ভারতের স্পেস গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা। চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে গবেষণা শুরু করার উদ্দেশ্যে বিগত কয়েক বছর ধরে অক্লান্ত পরিশ্রমের পর অবশেষে গত ১৪ই জুলাই চন্দ্রযান-৩ মিশনের সূচনা করে ইসরো। চন্দ্রযান-২ মিশনের সামান্য ব্যর্থতার পর চন্দ্রযান-৩ মিশন ছিল ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের জন্য অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং বিষয়। আর সেই কারণে চন্দ্রযান-২ মিশনের স্মৃতি বাঁচিয়ে রাখতে চন্দ্রযান-৩ মিশনেও ল্যান্ডরের নাম রাখা হয়েছে বিক্রম।

Advertisements

ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের (ISRO) মতে, আগামীকাল অর্থাৎ ২৩শে আগস্ট সন্ধ্যা ৫টা ৪৭ মিনিটে চাঁদের বুকে অবতরণ করবে ল্যান্ডার বিক্রম। বর্তমানে চাঁদ থেকে ল্যান্ডার ২১ কিলোমিটার দূরে প্রদক্ষিণ করছে। যা ধীরে ধীরে দূরত্ব কমিয়ে গতকাল চাঁদের মাটিতে নির্ভীঘ্নভাবে অবতরণ করবে। এদিকে, চাঁদের মাটিতে রাশিয়ার মিশন পুরোপুরি ধ্বংস হওয়ার পর চন্দ্রযান-৩ দিকে নজর রেখেছে পুরো পৃথিবী।

Advertisements

আমেরিকা, রাশিয়া এবং চীনের পর এবার চতুর্থ দেশ হিসেবে চাঁদের বুকে সফল মিশন চালিয়ে ইতিহাস লিখতে চলেছে ভারত। আমরা আপনাদের জানিয়ে রাখি, চাঁদের আকাশে ঢুকে পড়ার পর থেকে একের পর এক ছবি কিংবা ভিডিও পাঠাতে শুরু করেছে বিক্রম। তবে এবার
চন্দ্রযান-3 প্রপালশন মডিউল থেকে ল্যান্ডার মডিউল আলাদা করার পরে চাঁদের প্রথম ছবি পাঠিয়েছে। যা দেখে রীতিমতো অবাক হয়েছেন ভারতের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরাও। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামীকাল চাঁদের বুকে অবতরণ করে জলসহ বিভিন্ন খনিজ পদার্থ এবং চাঁদের বুকে মানুষ বসতি গড়ে তোলা সম্ভব কিনা সে বিষয়ে খোঁজ চালাবে ল্যান্ডার বিক্রম।

Advertisements