মুখ্যমন্ত্রীর দুরন্ত সিদ্ধান্ত, এবার থেকে রাজ্যের ব্যাচেলররাও ঘরে বসে টাকা পাবেন

সম্প্রতি বিভিন্ন রাজ্যে শুরু করা হয়েছে জনহিতকর একাধিক প্রকল্প। মেয়েদের কল্যাণের জন্য বেশ কিছু প্রকল্প বা উদ্যোগ দেশে চালু রয়েছে। তবে এই সিদ্ধান্ত একেবারে অভিনব।…

Published By: Pritam Santra | Published On:
Advertisements

সম্প্রতি বিভিন্ন রাজ্যে শুরু করা হয়েছে জনহিতকর একাধিক প্রকল্প। মেয়েদের কল্যাণের জন্য বেশ কিছু প্রকল্প বা উদ্যোগ দেশে চালু রয়েছে। তবে এই সিদ্ধান্ত একেবারে অভিনব। যারা বিয়ে করেননি তাদের জন্য ভাতা দেবে রাজ্য। যাকে বলা হচ্ছে ব্যাচেলর পেনশন। মুখ্যমন্ত্রীর ইচ্ছায় রাজ্যে শুরু হতে চলেছে এই প্রকল্প।

Advertisements

জানা গিয়েছে, শীঘ্রই হরিয়ানার ব্যাচেলররা পেনশন পেতে শুরু করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর বেশ কিছু দিন আগে একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন। সেখানে সাধারণ মানুষের বিভিন্ন দাবিদাওয়া শুনছিলেন মন দিয়ে। ওই অনুষ্ঠানেই ৬০ বছর বয়সী এক অবিবাহিত বৃদ্ধ নিজের আর্থিক সমস্যার কথা মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেছিলেন। বয়স্ক ব্যাচেলরদের সমস্যার কথা বলেছিলেন তিনি।

Advertisements

সেদিনের অনুষ্ঠানের পর বড় সিদ্ধান্তের দিকে ভাবনা শুরু করেছিল রাজ্য সরকার। ব্যাচেলর পেনশন প্রকল্পের আওতায় ৪৫ থেকে ৬০ বছর বয়সী অবিবাহিত নারী, পুরুষ উপকৃত হবেন। পেনশন দেওয়া হবে সেই ব্যাচেলরদের যাদের বার্ষিক আয় ১.৮০ লক্ষের কম। এই প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের ১.২৫ লক্ষ ব্যাচেলর পেনশনের সুবিধা পাবেন বলে আশা করা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী এই বিষয়ে ইতিমধ্যে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক সম্পন্ন করেছেন বলে বিভিন্ন রিপোর্টের মাধ্যমে জানা যায়। এক মাসের মধ্যে প্রকল্পের কাজ অনেকটা এগিয়ে যেতে পারে। প্রথম রাজ্য হিসেবে হরিয়ানা এই উদ্যোগ নিতে চলেছে।

Money

বর্তমানে হরিয়ানায় বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধী ভাতা দেওয়া হয়। হরিয়ানা সরকার বামন এবং ট্রান্সজেন্ডারদেরও আর্থিক সহায়তা প্রদান করে। কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে যে ব্যাচেলরদের জন্য ২,৭৫০ টাকা পেনশন দিতে পারে সরকার। যদিও এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও জানা যায়নি। সরকারী রিপোর্ট দ্রুত সব তৈরি হয়ে গেলে প্রকল্পের ব্যাপারেও কাজ এগোবে খুব তাড়াতাড়ি।

Advertisements