Health Tips: শীতকালে সুস্থ থাকতে চান? ব্যবহার করুন অর্জুন গাছের ছাল

আয়ুর্বেদে অনেক ভেষজ আছে যা স্বাস্থ্য সমস্যা নিরাময়ে ব্যবহৃত হয়। এর মধ্যে একটি হল অর্জুনের ছাল, যার বিশেষজ্ঞ ঔষধি গুণ রয়েছে। এতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য,…

Published By: Shreya Chatterjee | Published On:
Advertisements

আয়ুর্বেদে অনেক ভেষজ আছে যা স্বাস্থ্য সমস্যা নিরাময়ে ব্যবহৃত হয়। এর মধ্যে একটি হল অর্জুনের ছাল, যার বিশেষজ্ঞ ঔষধি গুণ রয়েছে। এতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য, যা অনেক রোগ দূর করতে সাহায্য করে। অর্জুনের ছালের কর্টিসল বা স্ট্রেস লেভেল কমানোর ক্ষমতাও রয়েছে। বর্তমানে কিন্তু নতুন প্রজন্মের উপরে অনেক বেশি কাজের চাপ থাকে এবং মানসিক চাপ থাকে তাইতো যদি তারাও এই অর্জুন গাছের চাল নিয়মিত ব্যবহার করতে পারেন, তাহলে মানসিক চাপ থেকে রিলিফ পাবেন।

Advertisements

শীতকালে যারা সর্দি-কাশি গলা ব্যথা নিয়ে ভোগেন, তারাও কিন্তু এই অর্জুন গাছের ছাল ব্যবহার করতে পারেন। গরম জলের মধ্যে অর্জুন গাছের ছালকে ফুটিয়ে খুব সুন্দর করে একটা তরল পানীয় বানিয়ে চায়ের মতন সিপ করে করে খান।

Advertisements

অর্জুনের ছালের গুঁড়ো ব্যবহার করতে পারেন। এর জন্য আপনি 2-3 গ্রাম অর্জুনের ছালের গুঁড়ো নিন। এই গুঁড়ো মধুর সাথে মিশিয়ে খান। আপনি চাইলে জলের সাথে গুঁড়োও নিতে পারেন। প্রতিদিন সকালে ও রাতে খাবার পর অর্জুনের ছালের গুঁড়ো সেবন করলে অনেক স্বাস্থ্য সমস্যা প্রতিরোধ করা যায়। যাইহোক, আপনি যদি কোনও গুরুতর অসুস্থতায় ভুগছেন তবে অর্জুনের ছাল খাওয়ার আগে একজন আয়ুর্বেদিক ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।

শীতে অর্জুনের ছালের জল পান করতে পারেন। এর জন্য প্রতি রাতে অর্জুন ছালের একটি ছোট টুকরো নিয়ে জলে ভিজিয়ে রাখুন। এই জল ফুটিয়ে সকালে পান করুন। খালি পেটে অর্জুনের ছালের জল পান করলে অনেক স্বাস্থ্য সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। আপনিও খেতে পারেন এই জল।

মানুষ প্রায়ই শীতকালে বেশি চা খান, কিন্তু দুধ থেকে তৈরি চা স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে। এই অবস্থায় আপনার আয়ুর্বেদিক চা ব্যবহার করা উচিত, যাতে আপনি অর্জুনের ছাল থেকে তৈরি চা পান করতে পারেন। এর জন্য, এক কাপ জল নিন এবং এতে অর্জুনের ছালের একটি ছোট টুকরা যোগ করুন। এবার এই জল ভালো করে ফুটিয়ে নিন।

জল অর্ধেক হয়ে এলে সেবন করুন। আপনি প্রতিদিন দুবার অর্জুনের ছাল থেকে তৈরি চা পান করতে পারেন। এই চা পান করলে আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে এবং শীতকালীন রোগ প্রতিরোধ হবে। তবে আমরা আরেকটা জিনিসও জানি না যারা হার্টের অসুখে ভুগছেন, তারা যদি নিয়মিত এই চা পান করতে পারেন, তাহলে কিন্তু হার্টের অসুখ একেবারে চিরতরে বিদায় নেবে।

Advertisements