‘টুয়েলফথ ফেল’ ছবিতে দারুণ অভিনয় ক্রাশ মেধার, অভিনেত্রীকে দেখে নিন এক ঝলক

সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে 'টুয়েলফথ ফেল'। বিধু বিনোদ চোপড়া পরিচালিত ছবিটি বড় পর্দায় সাড়া জাগাতে না পারলেও, ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আশানুরূপ ফল করেছে।ছবিটি এক আইপিএস অফিসারের…

Published By: Shreya Chatterjee | Published On:
Advertisements

সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে ‘টুয়েলফথ ফেল’। বিধু বিনোদ চোপড়া পরিচালিত ছবিটি বড় পর্দায় সাড়া জাগাতে না পারলেও, ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আশানুরূপ ফল করেছে।ছবিটি এক আইপিএস অফিসারের জীবন নিয়ে। সেই আইপিএস অফিসারের নাম মনোজ কুমার শর্মা। চম্বলের এক ছোট্ট গ্রামের ছেলে মনোজ। যিনি সততার সঙ্গে ইউপিএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে আই পি এস অফিসার হয়েছিল।আই পি এস অফিসার হওয়ার প্রস্তুতির সময় লোকের বাড়ির নোংরা টয়লেটও পরিষ্কার করেছিলেন মনোজ। ছবিতে মনোজের চরিত্রে অভিনয় করে লাইমলাইট কেড়ে নিয়েছিলেন অভিনেতা বিক্রান্ত মাসি।

Advertisements

এছাড়া অভিনেত্রী মেধা শঙ্কর, যিনি বিক্রান্ত ম্যাসির ছবি 12 ফেইল-এ শ্রদ্ধা শুক্লার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। আপাতত তিনি এখন বং ক্রাশ হয়ে গেছেন। লাইমলাইটে তার ছবি এখন চারিদিকে ঘুরে বেড়াচ্ছে আজকাল ক্রোমাগত খবরের শিরোনাম দখল করছেন তিনি। আজকাল ক্রমাগত খবরে রয়েছেন। বিধু বিনোদ চোপড়া পরিচালিত ”12 th ফেইল’ ছবিটি দর্শকরা বেশ পছন্দ করেছেন।ছবিটির গল্প দর্শকদের হৃদয় ছুঁয়েছে।

Advertisements

বিক্রান্ত ম্যাসির পরিশ্রম দেখে ভক্তরা খুবই খুশি। তবে এই ছবি দিয়েই রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে গেছেন মেধা শঙ্কর। ছবিটি হিট হওয়ার পর থেকেই মেধা শঙ্করের নাম সর্বত্র। মেধা শঙ্করের সৌন্দর্যও দর্শকদের কাছে বেশ পছন্দ হচ্ছে। আপাতত খবরের শিরোনামে এই গ্লামারাস নায়িকার ছবি।
অভিনেত্রীর ফ্যান ফলোয়িংও উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে।

এদিকে অভিনেত্রীর ঐতিহ্যবাহী লুক সবার নজর কেড়েছে। প্রথম অভিনেত্রীকে ফলো করেছেন মাত্র ৩৫১ হাজার মানুষ। মেধা শঙ্কর বাস্তব জীবনে খুব সুন্দর এবং গ্ল্যামারাস। আপনি অভিনেত্রীর ইনস্টাগ্রামে এমন অনেক ছবি দেখতে পাবেন, যা দেখে আপনি বিশ্বাস করবেন না যে ইনি সেই মেধা শঙ্কর, যিনি ছবিতে একজন নিষ্পাপ মেয়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন।

অনেকেরই অজানা, সুন্দরী মেধার জন্ম নয়ডায়। যদিও তাঁর বাবা অভয় শংকর একজন ব্যবসায়ী। তাঁর মা রচনা রাজ শংকর, যিনি ছিলেন একজন কোরিওগ্রাফার। প্রতিভাবান এই অভিনেত্রী নয়ডার বিদ্যা ভারতী পাবলিক স্কুল থেকে তাঁর পড়াশোনা শেষ করেছেন।

Advertisements