আর বাড়িতে বসে পাবেন না নতুন ATM কার্ড, গ্রাহকদের জন্য কড়া পদক্ষেপ নিল SBI

ভারতের অন্যতম বৃহৎ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক SBI এবার তাদের গ্রাহকদের জন্য বিশেষ পদক্ষেপ নিতে চলেছে। এবার থেকে আর চাইলেই পাবেন না ATM কার্ড! আসলে সোশ্যাল মিডিয়ায়…

Published By: Saikat Sarkar | Published On:
Advertisements

ভারতের অন্যতম বৃহৎ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক SBI এবার তাদের গ্রাহকদের জন্য বিশেষ পদক্ষেপ নিতে চলেছে। এবার থেকে আর চাইলেই পাবেন না ATM কার্ড! আসলে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা এক ব্যক্তির ছোট্ট মেসেজে এমনটাই উল্লেখ করা হয়েছে। যদিও ওই ব্যক্তির টুইটার বার্তার যোগ্য জবাব দিয়েছে SBI।

Advertisements

সম্প্রতি, টুইট বার্তার একটি মেসেজে এক ব্যক্তি SBI ব্যাংকের উদ্দেশ্যে অভিযোগ জানিয়েছেন, তার ATM কার্ডটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর আর কোনো রকম ভাবে ব্যাংক থেকে নতুন এটিএম কার্ড পাঠানো হয়নি তার জন্য। অথচ স্টেট ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী, কোন ব্যক্তির এটিএম কার্ড মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার তিন মাস আগে ব্যাংক থেকে ওই ব্যক্তির নামে নতুন এটিএম কার্ড স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইস্যু করা হয়। তবে সেই সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়েছেন ওই ব্যক্তি। তিনি টুইট বার্তায় আরও লিখেছেন, যেখানে তার স্টেট ব্যাংকের বইটি 10 বছরের পুরানো, সেখানে কেন তিনি ব্যাংকের এই বিশেষ সুবিধা পেলেন না?

Advertisements

যদিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ওই টুইটের প্রতি উত্তর দেওয়া হয়েছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার থেকে। ব্যাংকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, স্টেট ব্যাংকের প্রত্যেকটি গ্রাহক তাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যেকোনো গ্রাহকের এটিএম কার্ডের মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার 3 মাস পূর্বে ওই ব্যক্তির নামে নতুন এটিএম কার্ড ইস্যু করে পোস্ট অফিসের মাধ্যমে তার রেজিস্ট্রি করার ঠিকানায় প্রেরণ করা হয়। তবে ওই ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট ফিনান্সিয়াল ইনক্লুশন অ্যাকাউন্টের অধীনে আসে। ফলে তাকে অবশ্যই 12 মাসে একবার KYC আপডেট করতে হবে। এছাড়া তিনি বিগত এক বছরে এটিএম কার্ড ব্যবহার করেননি।

উল্লেখ্য, নির্দিষ্ট সময়ে ঘরে বসে এটিএম কার্ড পেতে আরও বেশ কয়েকটি নিয়ম মেনে চলতে হবে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার গ্রাহকদের। যেমন-

1. ঘরে বসে এটিএম পেতে হলে আপনার অ্যাকাউন্টটি কোনভাবেই আর্থিক অন্তর্ভুক্তির তালিকায় থাকা চলবে না।

2. নির্দিষ্ট সময় পর আধার কার্ড এবং প্যান কার্ডের সাহায্যে KYC আপডেট করা বাধ্যতামূলক।

3. আপনার ব্যাংক একাউন্টে অবশ্যই প্যান কার্ডের সাথে লিংক থাকতে হবে।

4. বছরে অন্তত একবার ডেবিট কার্ড ব্যবহার করে টাকা উত্তোলন করতে হবে।

Advertisements